আমাদের জানা মানবজাতির ইতিহাস সম্পূর্ণ ভুল!

বিজ্ঞানীরা আগে ধারণা করতেন মানবজাতির (মানে বুদ্ধিমান প্রজাতি, যার নাম হোমো স্যাপিয়েন্স, যারা নিয়েন্ডারথাল থেকে নিজেদের আলাদা করেছিল) তাদের বয়স আনুমানিক ২ লাখ বছর। কিন্তু, সম্প্রতি, আফ্রিকা থেকে একটি ফসিল পাওয়া গেছে। তার ডিএনএ গবেষণা করে জানা গেছে, এতোদিন পর্যন্ত বিজ্ঞানীরা যা ধারণা করছিলেন, তা সম্পূর্ণ ভুল। মানবজাতির বয়স আরো বহু বেশি। নতুন তথ্যানুযায়ী, মানবজাতির বয়স আসলে ২ লাখ বছর নয়, প্রায় ৩ লাখ বছর।

এ নিয়ে বিজ্ঞানীদের অবশ্য নিজেদের মধ্যে কথা কাটাকাটি চলছে। নৃবিজ্ঞানী টড ডিসোটেল এ কথা মানতে চান না। তিনি বলেন, ‘না, মানবজাতির বয়স ২ লাখ বছরই। এর বেশি হবে না। কিন্তু, সাম্প্রতিক গবেষণা চালানো সুইডেন উপসালা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানী ম্যাটিস জ্যাকবসন বলেন, ৩ লাখ বছর না, মানবজাতির বয়স ৩ লাখেরও বেশি হতে পারে। প্রায় সাড়ে তিন লাখ বছর!

তিনি তার গবেষণায় দেখিয়েছেন, গত জুনে আফ্রিকার মরক্কোতে যে ফসিলটি পাওয়া গেছে তা থেকে জানা গেছে তার বয়স কমপক্ষে ৩ লাখ বছর। হোমো স্যাপিয়েন্সের সঙ্গে তার এতো বেশি মিল যে তাকে অন্য কোনো প্রজাতির ভাবা ভুল হবে। তার ডিএনএন সঙ্গে বর্তমান মানবপ্রজাতির অনেক মিল আছে। নিউ ইয়র্ক পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *