ছুটির আবেদনে যা লিখেছেন প্রধান বিচারপতি

Surendra Kumar Sinha
প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা। ছবি: সংগৃহীত

এক মাসের ছুটিতে গেছেন প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা। তার এই ছুটিতে যাওয়া নিয়ে দু’দিন ধরে বেশ আলোচনা-সমালোচনা চলছে। এ প্রেক্ষাপটে এক মাসের ছুটি চেয়ে রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানো এস কে সিনহার ছুটির আবেদন সংবাদমাধ্যমের কাছে প্রকাশ করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

বুধবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রথমে আবেদনটি পড়ে শোনান আইনমন্ত্রী। পরে তিনি সেটি টেলিভিশন ক্যামেরার সামনে তুলে ধরেন ও সাংবাদিকদের ছবি তোলার অনুমতি দেন। পরে আইন সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হকের হাত থেকে সাংবাদিকরা সেটির ছবি তুলে নেন।

এস কে সিনহা স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে এর আগে দীর্ঘদিন চিকিৎসাধীন ছিলেন প্রধান বিচারপতি। গত বেশ কিছুদিন ধরেও বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায় ভুগছেন তিনি। বর্তমানে শারীরিক সুস্থতার জন্য তার বিশ্রাম প্রয়োজন।

এ অবস্থায় ৩ অক্টোবর থেকে ১ নভেম্বর পর্যন্ত ৩০ দিনের ছুটির আবেদন করে সেটি অনুমোদনের জন্য রাষ্ট্রপতির কাছে অনুরোধ করেন প্রধান বিচারপতি।

আগস্ট মাসে সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর থেকে সরকারি দলের তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন এস কে সিনহা।

সুপ্রিম কোর্টের অবকাশ শেষে মঙ্গলবার আদালতের কার্যক্রম চালু হলে প্রধান বিচারপতির অপসারণের দাবিতে আন্দোলনে নামার কথা ছিল আওয়ামী লীগ সমর্থক আইনজীবীদের।

এর আগেই সোমবার সরকারের এক প্রজ্ঞাপণে বলা হয়, এস কে সিনহার এক মাসের ছুটি মঞ্জুর করেছেন রাষ্ট্রপতি। প্রজ্ঞাপনে একই সঙ্গে এই সময়ে জ্যেষ্ঠ বিচারক মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞাকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *