অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন মার্কিন অর্থনীতিবিদ থ্যালার

Thaler
মার্কিন অর্থনীতিবিদ রিচার্ড থ্যালার, ছবি : সংগৃহীত

অর্থনীতিতে নোবেল জিতলেন মার্কিন অর্থনীতিবিদ রিচার্ড থ্যালার। সোমবার স্টকহোমে রয়্যাল সুইডিশ একাডেমি তার নাম ঘোষণা করে। সুইডিশ একাডেমির বিবৃতিতে বলা হয়েছে, অর্থনৈতিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ার গবেষণার সঙ্গে ‘বাস্তবসম্মত মানসিক অনুমান’কে যুক্ত করে তিনি নোবেল জিতেছেন।

৭২ বছর বয়সী মার্কিন এই অর্থনীতিবিদ ১৯৪৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ইস্ট অরেঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। থ্যালার যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব শিকাগোর আচরণগত বিজ্ঞান ও অর্থনীতির অধ্যাপক।

উল্লেখ্য বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ১৯০১ সাল থেকে নোবেল পুরস্কার দেওয়া শুরু হয়। তবে অর্থনীতিতে নোবেল দেওয়া শুরু হয় ১৯৬৯ সাল থেকে। এ বছরের বিজয়ীসহ অর্থনীতিতে এ পর্যন্ত ৪৮ বার পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। আর এ পর্যন্ত অর্থনীতিতে কেবল একজন নারীই পুরস্কার পেয়েছেন। তিনি হলেন, এলিনর অসট্রম। ২০০৯ সালে তাকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

আগের বছরও বাজার অর্থনীতির চালিকাপ্রবাহে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য পুরস্কার জিতে নেন দুই মার্কিন অর্থনীতিবিদ। রাজার অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্র হিসেবে কন্ট্রাক্ট থিউরিতে অবদানের কারণে সে বছর হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্রিটিশ বংশো্দ্ভূত অর্থনীতিবিদ অলিভার হার্ট এবং ফিনল্যান্ডে জন্ম নেওয়া ম্যাসাচুয়েটস ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি) বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতিবিদ বেঙ্কট হোমস্ট্রমকে নোবেল দেওয়া হয়।

১৮৯৫ সালের নভেম্বর মাসে আলফ্রেড নোবেল তার মোট উপার্জনের ৯৪% (৩ কোটি সুইডিশ ক্রোনার) দিয়ে তার উইলের মাধ্যমে নোবেল পুরস্কার প্রবর্তন করেন। এই বিপুল অর্থ দিয়েই শুরু হয় পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, চিকিৎসাবিজ্ঞান, সাহিত্য ও শান্তিতে নোবেল পুরস্কার প্রদান। পরে তালিকায় যুক্ত হয় অর্থনীতি।

পুরস্কার ঘোষণার আগেই মৃত্যুবরণ করেছিলেন আলফ্রেড নোবেল। আইনসভার অনুমোদন শেষে তার উইল অনুযায়ী নোবেল ফাউন্ডেশন গঠিত হয়। তাদের ওপর দায়িত্ব বর্তায় আলফ্রেড নোবেলের রেখে যাওয়া অর্থের সার্বিক তত্ত্বাবধায়ন করা এবং নোবেল পুরস্কারের সার্বিক ব্যবস্থাপনা করা। আর বিজয়ী নির্বাচনের দায়িত্ব সুইডিশ একাডেমি আর নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটিকে ভাগ করে দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *