নারীদের কাছে পুরুষরা কখন বুড়ো হয়?

কথায় কথায় নারীদের ক্ষেত্রে একসময় বলা হতো বাংলার নারী ‘কুড়িতেই বুড়ি’! কিন্তু পুরুষরাও যে বুড়ো হয়, সেই কথা কখনো বলা হয় না। অনেকে হয়তো বলতে পারেন, পুরুষ বড়ো হলেও সেটা সহজেই বোঝা যায় না। তবে সেটা যাইহোক, একটা প্রশ্ন সব সমেই ওঠে, মেয়েদের কাছে ঠিক কত বয়স হলে একজন পুরুষ ‘বুড়ো’ হয়? সেটা নিয়েই ২০০০ জনের ওপর একটি সমীক্ষা করেছে এয়ারবিএনবি নামে একটি ওয়েবসাইট।

তাদের সমীক্ষায় দেখা গেছে, ২৭ বছর বয়সে পুরুষরা মনের দিক দিয়ে সব থেকে সপ্রতিভ থাকে। কোনও বাধা বিঘ্নই তখন তাদের আটকাতে পারে না। হঠাৎ করেই এরা বেরিয়ে পড়তে পারে ট্র্যাকিঙয়ের উদ্দেশ্যে বা থমথমে গুরুগম্ভীর পরিবেশে গল্প শুনিয়ে সবাইকে হাসিয়ে দিতে পারে।

কিন্তু বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই মানুষগুলোই কেমন যেন নিষ্প্রভ হয়ে যায়। জীবনের দায়-দায়িত্ব কাঁধে চড়ার সঙ্গেই তারা যেন একঘেয়ে হয়ে যায়। কয়েক বছর আগের স্বতঃস্ফূর্ত ভাব হারিয়ে যায়। সমীক্ষা অনুযায়ী পুরুষরা সব থেকে বোরিং হয়ে যায় ৩৯ বছর বয়সে।

এয়ারবিএনবি-এর সমীক্ষায় এটিও দেখা হয়েছে, পুরুষদের তুলনায় নারীরা বোরিং হয় আরও আগেই, ৩৫ বছর বয়সে।

কিন্তু ৩৫ বছর বয়সেই নারীদের যৌন আবেদন সব থেকে বেশি হয়। প্রসঙ্গত, সমীক্ষায় ৫০ বছর বয়সের পর পুরুষদের আচরণ সম্পর্কে সেভাবে কিছু বলা হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *